ঢালিউডের বর্তমান সময়কার জনপ্রিয় অভিনেতা মাহিয়া মাহি গাজীপুরের ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ কামরুজ্জামান সরকার রাকিবের সঙ্গে কয়েকদিন আগে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বিয়ের অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় গত ১৩ সেপ্টেম্বর, রাত ১২ টা ৫ মিনিটে। মাহি তার ফে\’সবুক হ্যান্ডেলে তার সেই বিয়ের ঘোষণা দেন এবং তার ভক্ত এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের নিকট দোয়াও চান। এই নায়িকা তার স্বামীকে নিয়ে বেশ চু\’টিয়ে সময় পার করছেন। তিনি তার বিয়ের পর নিজেদের এই নতুন জীবন নিয়ে অনেক কিছু জানিয়েছেন। এই নায়িকা মাঝে মাঝে তাদের নতুন জীবনের তোলা ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেন। এবার তিনি তার স্বামিকে নিয়ে একটি রোমান্টিক পোস্ট দিয়েছেন। যেখানে তিনি ছন্দাকারে লিখেছেন-
রাইখাছি মনেতে তোমায়
আছো মোনাজাতে
পাইয়াছি জীবনে তোমায়
চাই আখেরাতে
- এমনইভাবে প্রার্থনা করে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট দিয়েছেন সময়ের জনপ্রিয় ঢালিউড তারকা মাহিয়া মাহি। সেই সঙ্গে দিয়েছেন লাভ ইমোজি। শুধু তাই নয়, এর সঙ্গে রয়েছে আরও টুইস্ট। নতনু স্বামী কামরুজ্জামান সরকার রাকিবের সঙ্গে দুটি রোমান্টিক ছবিও প্রকাশ করেছেন নায়িকা।

এর আগে ১৭ সেপ্টেম্বর (শুক্রবার) দিনগত রাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ কিছু ছবি পোস্ট করেন মাহি। সেখানে দেখা যায়, বিশাল বড় দুটি ট্যাডি বিয়ারের সঙ্গে বা\’/চ্চাসুলভ ভ\’ঙ্গিতে পোজ দিয়েছেন তিনি। নায়িকার ছবিগুলো তুলেছেন তার স্বামী রাকিব সরকার।

ক্যাপশনে মাহি লিখেছেন- \’আমি অনেক খুশি গিফট পেয়ে, কিন্তু ঘটনা হলো এটা ছবি তোলার কেমন স্টাইল? বাই দ্য ওয়ে, ছবি তুলেছেন আমাদের রাকিব সরকার।\’ ছবির মন্তব্যে রাকিব লিখেছেন- \’তোমার খুশিতে আমি খুশি।\’



রাকিবের ছবি তোলার স্টাইল দেখে মাহি যেমন অ\’বাক হয়েছেন তেমনি নেটিজেনদেরও হাসির খোরাক জুগিয়েছেন। মাহির ছবিগুলো তুলতে বেচারার অবস্থা না\’জেহাল। ঘরের মেঝেতে গড়াগড়ি দিয়ে নায়িকার ছবি তুলছেন তিনি। ছবিগুলো দেখে বোঝাই যাচ্ছে নতুন সংসারে বেশ ভালো সময় কা\’টাচ্ছেন অভিনেত্রী। তূণমুল থেকে রাজনীতি শুরু করা রাকিব সরকারের রয়েছে অনেক সুনাম। গরিব-দুঃখী মানুষের পাশে থেকে সবসময় কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। বর্তমানে বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য রাকিব সরকার। তিনি বিভিন্ন ব্যবসায় জ\’ড়িত। সেগুলোর মধ্যে গাড়ির শো-রুম, পরিবহন, রিসোর্ট, কাঁচা মালের আড়ৎ, জমিসহ আরো অনেক কিছু।

মাহি ও রাকিব দুজনেরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে। প্রথম স্ত্রীর সংসারে দুই সন্তানের জনক রাকিব। এরমধ্যে একটি ছেলে একটি মেয়ে। ছেলেটির নাম সোয়াইব ও মেয়েটির নাম সাইয়ারা। রাকিবের সঙ্গে মাহির বন্ধুত্ব বেশ পুরনো। দুজনের মতের মিল এবং বোঝাপড়াও ভালো। আর তাই ৯ বছরের বন্ধুত্বকে বিয়েতে রূপ দিয়েছেন তারা। এই বিয়ে নিয়ে আশাবাদী মাহি

অন্যদিকে, মাহি ২০১৬ সালে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুর সাথে জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন। বিয়ের কয়েক বছর পার হওয়ার পর তাদের বিবাহ বি\’চ্ছেদের কথা ভাসতে থাকে। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে অভিনেত্রী সবসময় চেপে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এরপর গত মে মাসে মাহি নিজেই ফে\’সবুকে অপুর সঙ্গে তার বিচ্ছেদের খবর ঘোষণা করেন। ডিভোর্সের পর, অভিনেত্রী\’র বিভিন্ন ফে\’সবুক স্ট্যাটাসের ভিত্তিতে ঢালিউডের দ্বিতীয় বিয়ের গু\’জ/ব ছড়িয়ে পড়তে থাকে।

এদিকে কামরুজ্জামান সরকার রাকিবের সাথে বিয়ের পর নায়িকা সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করেন, তিনি সেখানে লিখেছিলেন, গত ১৩ সেপ্টেম্বর, সকাল ১২.০৫ এ, আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে করেছি। অন্য সবকিছুই একটি গু\’ন্জন ছিল। আমাদের একমাত্র চাওয়া, আপনারা আমাদের জন্য প্রার্থনা করবেন। রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী কামরুজ্জামান সরকার রাকিব গাজীপুরে বেড়ে ওঠেন এবং সেখানকার ভাওয়াল বদরে আলম গভর্নমেন্ট কলেজে পড়াশোনা করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সাবেক ছাত্র। মাহি ২০১৬ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ব্যবসায়ী মাহমুদ পারভেজ ওপুর সাথে সংসার করেন। এই দম্পতি গত মে মাসে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ চূড়ান্ত করেন।