২০১৭ সালে হাইকোর্ট বেসরকারি পর্যায়ে যে সকল স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা রয়েছে সেই সকল প্রতিষ্ঠানের কোনো শিক্ষকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলে জন্য ৬০ দিন সময় নির্ধারন করে একটি পরিপত্র জারি করার নির্দেশ দেয়। সেই সময়ে আদালত শিক্ষা সচিবকে এই নির্দেশনাকে বাস্তবায়ন করার জন্য নির্দেশ দেন। সেই সময়ে বিচারপতি আশীষ রঞ্জন দাস এবং বিচারপতি আশফাকুল ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চেও এ আদেশ দেন।
এবার শিক্ষক বরখাস্ত নিয়ে নতুন আদেশ জারি করেছে হাইকোর্ট। নতুন এ আদেশে বলা হয়েছে স্কুল, কলেজ, মাদরাসার কোনো শিক্ষককে ৬ মাসের বেশি সাময়িক বরখাস্ত করে রাখা যাবে না। রায়ে আরও বলা হয়েছে, কোনো শিক্ষককে এই সময়ের বেশি বরখাস্ত করে রাখলে ওই আদেশ বাতিল বলে গণ্য হবে।

এ বিষয়ে জা’রি করা রুল নিষ্পত্তি করে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) এই রায় দেন।

গত ১৪ বছর যাবৎ সাময়িক বরখাস্ত ছিলেন বাদশা মিয়া নামের মাগুরার একজন স্কুল শিক্ষক। তিনি রিট করার পরিপ্রেক্ষিতে এ রায় প্রদান করেন হাইকোর্ট। তবে এর আগে দেশের বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নির্বাচিত ম্যানেজিং কমিটি তাদের নির্ধারনকৃত সময় বেধে দিতো। বর্তমান সময়ে সরকার নির্ধারিত সময়ই হবে সাময়িক বরখাস্ত করার মেয়াদ।