দীর্ঘ ৫৪৪ দিন অর্থাৎ দেড় বছর ধরে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকার পর আজ (রবিবার) হতে পুনরায় খুলে দেয়া হলো সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের কার্য্যক্রমে পূনরায় স্কুল কলেজ মুখরিত হয়ে উঠেছে। স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়ার পরেও ক’ঠো’র স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। তবে আগের মতো স্কুল-কলেজের সামনে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের যে ভীড় সৃষ্টি হয়েছে সেটা নিয়ে বি’প’ত্তি দেখা দিয়েছে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মতে, অভিভাবকদের এই ধরনের ভীড় দেশে সংক্রমনের যে হার সেটা বাড়িয়ে দিতে পারে।
রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কোভিড-১৯ নিয়ে নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এমন আ’/শ’/ঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক নাজমুল ইসলাম।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে। শি’/’শু কিশোরদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। একে অপরকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উদ্বুদ্ধ করতে হবে যেন কোনো অবস্থাতেই সংক্রমণের আগের চেহারা ফিরে না আসে।

গেল বছর ৮ই মার্চ বাংলাদেশে প্রথম ক’রো’না সংক্রমিত ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়। এরপর ঐ একই মাসের ১৮ (মার্চ) তারিখ হতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়। বেশ কয়েক দাফা বাড়ানোর পর বন্ধের মেয়াদ চলমান বছরের ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত করা হয়। আজ অর্থাৎ ১২ই সেপ্টেম্বর হতে দেশের সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শ্রেণিকক্ষে পাঠদান আরম্ভ হয়েছে।