জিপিএসে নির্দেশিত রুট অনুসরণ করাই জীবনের কাল হলো

জিপিএস ত্রুটির কারণে একজন ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছেন। ফিল প্যাক্সন (৪৭) তার মেয়ের নবম জন্মদিন উদযাপন করে বাড়ি ফিরছিলেন। প্রবল বৃষ্টি এবং দমকা হাওয়া সহ বাইরে অন্ধকার। অন্ধকারে হারিয়ে যাওয়া এড়াতে ফিল জিপিএস চালু করল।
কিন্তু এতেই জীবনের কাল হল।

ফিল জিপিএসে নির্দেশিত রুট অনুসরণ করেছিল। কিছুক্ষণ পর গাড়ি নিয়ে একটা ব্রিজে উঠল। গাড়িটি সেতু থেকে ছিটকে নদীতে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই ফিল মারা যান। ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনায়।
পুলিশ জানিয়েছে, নয় বছর আগে সেতুটি ভেঙে ফেলা হয়েছিল। ফলে সেতুটি নদীর ওপর দিয়ে চলে গেছে। প্রবল বৃষ্টিতে ফিল আন্দাজ করতে পারেনি। ফলে তিনি গাড়িসহ নদীতে পড়ে যান। উত্তর ক্যারোলিনা স্টেট হাইওয়ে প্যাট্রোল মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

প্রাথমিক তদন্তে দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে গতি, মাদক বা অ্যালকোহলের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। কিন্তু ফিল গাড়ি চালানোর সময় জিপিএস অনুসরণ করছিলেন কিনা তা নির্ধারণ করতে পারেননি তদন্তকারীরা।

ফিলের পরিবার অভিযোগ করেছে যে সেতুটি বিপজ্জনক ছিল এমন কোনও লক্ষণ নেই। থাকলে হয়তো ফিলের এই দুর্ঘটনা ঘটত না।

ভুক্তভোগীর স্ত্রী অ্যালিসিয়া প্যাক্সন শনিবার বলেছেন: তিনি গুগল ম্যাপ ব্যবহার করেন কিন্তু তিনি সেই নির্দেশাবলী ব্যবহার করেন কিনা তা আমার জানা নেই।

অ্যালিসিয়া তার ফেসবুকে সেতুর ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, আমি চাই সবাই এই ধরনের দুর্ঘটনা সম্পর্কে সচেতন হোক।

ফিলের শাশুড়ি লিখেছেন: এটি একটি সম্পূর্ণ প্রতিরোধযোগ্য দুর্ঘটনা ছিল, আমরা তার মৃত্যুতে শোকাহত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *