যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে সকল অভিযোগের জবাব দেওয়া হয়েছে : র‌্যাব মহাপরিচালক

সম্প্র্রতি ‍বিচারবহিভূত হ/ত্যকান্ড গু/ম, খু/নসহ নানা অভিযোগ উঠে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী র‌্যাবের বিরুদ্ধে। বিষয়টি নিয়ে মানবাধিকার সংগঠনগুলো প্রতিবাদ করে নানা কর্মসূচি পালন করে। এ বিষয় নিয়ে দেশের মানবাধিকার সংগঠনগুলোসহ এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশ জাতিসংঘে চিঠি দেয়। যার পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে সরকার মন্তব্য করে প্রসঙ্গটি নিয়ে যা বললেন র‌্যাব মহাপরিচালক এম খুরশিদ হোসেন পিপিএম।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) ওপর  যুক্তরাষ্ট্রের নি/ষেধাজ্ঞার বিষয়ে সকল অ/ভিযোগের জবাব দে/ওয়া হয়েছে , নিষেধাজ্ঞা প্র/ত্যাহার কূটনৈতিক। তবে র‌্যাবের মহাপরিচালক এম খুরশীদ হোসেন পিপিএম বলেছেন, সরকার বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে।

সোমবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে সিলেটে র‌্যাব-৯ সদর দফতর পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় র‌্যাব সততার সঙ্গে কাজ করছে। সেই সাথে সংগঠনটি সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জন করেছে। স/ন্ত্রাস, মা/দক ও জ/ঙ্গি দমনে র‌্যাব সক্রিয় ভূমিকা পালন করছে। প্রতিষ্ঠানে কেউ অবৈধ কাজ করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। নি/ষিদ্ধ ঘোষিত ৭৬ জনের তালিকা অনুযায়ী তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে কর্তৃপক্ষের কাছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের অনেক অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন তিনি।

তিনি বলেন, বান্দরবানে অভিযান এখনো চলছে। গভীর অরণ্যে কেন, দেশের অন্য কোথাও তাদের অস্তিত্ব থাকলে জ/ঙ্গি ও স/ন্ত্রাসবিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে। জ/ঙ্গি স/ন্ত্রাসীদের কাছে র‌্যাব হবে আ/তঙ্কের নাম।

যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞায় সংস্কারের জন্য যে কথ বলা হয়েছে সেটির দায়িত্ব সরকারের। তবে র‌্যাব তার নীতিতে অটল- সংগঠনে কেউ অপরাধ করলে তার বিরুদ্ধে নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, র‌্যাবের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টি নিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে কাজ করা হচ্ছে। র‌্যাবের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছিল সে গুলির বিষয়ে অবগত করা হয়েছে তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *