সবাই মিলে শাকিব-অপুকে এক করে দাও না, তোমরা সবাই মিলে ধরলে আর না করতে পারবে না : সুচরিতা

বাংলা সিনেমার আলোচিত অভিনেত্রী সুচরিতা। অসংখ্য জনপ্রিয় সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকদের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছিলেন তিনি। যদিও তাকে এখন সিনেমায় কম দেখা যায়। আলোচিত এই অভিনেত্রী মাঝে-মধ্যে বিভিন্ন ঘটনার মাধ্যমে আলোচনায় এসে থাকেন। ব্যক্তিগত জীবন ও সিনেমার বিষয় নিজের মতামত তুলে ধরে যে সব মন্তব্য করেলেন আলোচিত এই অভিনেত্রী।

সত্তর দশকের জনপ্রিয় নায়িকা সুচরিতা। এখনও প্রাণবন্ত, হাসিতে ভরা মানুষ। সুযোগ পেলেই বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেন, ছুটে যান চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ব/নভোজনে।। গত বুধবার গাজীপুরে সমিতি আয়োজিত বনভোজনে দেশের একটি জনপ্রিয় টিভি চ্যানেলে সঙ্গে খোলামেলা কথা বলেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের এই জনপ্রিয় মুখ।

প্রশ্ন: কেমন আছেন, সময় কেমন কাটছে?

সুচরিতা: ভালো, কিন্তু বয়স বৃদ্ধি পাচ্ছে, যার কারণে মাঝে মাঝে শরীর খারাপ হয়। আর বাসায় সময় কাটছে। আপনাদের বাবা-মা যেভাবে তাদের সময় কাটায়, আমিও তাই করি। যদিও বাড়িতে কাজ করার লোক আছে।

প্রশ্ন: চলচ্চিত্রে কম দেখা যায় কেন?

সুচরিতা: শুধু আ/মার কেন , এখন কোনো শিল্পীর ছবি নেই। আমাদের চলচ্চিত্রের রাজপুত্র শাকিব খানের হাতে কয়টি সিনেমা আছে? তা ছাড়া দু-একটি ছবির অফার এসেছে, যেখানে তাদের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করতে বলা হয়েছে। আমি নিজেও মায়ের চরিত্রে অভিনয় করতে চাই। কিন্তু আমি কারো মা হতে পারি না। আমি এমন চরিত্র করতে চাই যা আমার লুকের সাথে যায়। মা হলেও সমস্যা নেই।

প্রশ্ন: চলচ্চিত্রের এখন যে খারাপ সময় যাচ্ছে তার কারণ কী বলে মনে করেন?

সুচরিতা: আমি মনে করি শিল্পীদের এখন অভিনয়ে আগ্রহ কম। সাজগোজ করে শুধু ঘুরে ঘুরে শিল্পী হওয়া যায় না। দু-একজন ভালো শিল্পীই ইন্ডাস্ট্রিকে টি/কিয়ে রাখতে পারেন। সে হিসেবে শিল্পীর সংখ্যা কম। কিন্তু অনেক নায়িকাকে বিভিন্ন সাজে ঘুরে বেড়াতে দেখি। আসে, সেলফি তোলে, আমি প্রার্থনা করি দেয়। দিনরাত দর্শকদের সাথে এত সেলফি তুললে মানুষ আর টিকিটের টাকা দিয়ে সিনেমা হলে যাবে না।

প্রশ্ন: নতুন অভিনেতাদের প্রতি আপনার ক্ষোভ আছে বলে মনে হচ্ছে।

সুচরিতা: আসলে নতুনদের বলে কি/ছুই হবে না। তারপরও আমরা যখন কাজ করতাম তখন চোখে কাজল আর ঠোঁটে একটু লিপস্টিক লাগিয়ে শুটিংয়ে যেতাম। এখন দেখুন, অনেকের মেকআপ কখনও শেষ হয় না। আরে, কতটা মেকআপ লাগবে, সেটা নির্ভর করবে গল্পের চরিত্রের ওপর। চরিত্রটি বুঝুন, ক্যামেরার সামনে সেই চরিত্রটি ফুটিয়ে তুলুন। আর ভালো অভিনেত্রীরা এমনিতেই দর্শক পছন্দ করে, তারপর সবাই তাদের তারকা শিল্পী বলে। শিল্পী না হলে তারকা হওয়া যায় না। তাই বলব, শিল্পী হও।

প্রশ্ন: চলচ্চিত্রে অভিনয় না করলে নির্মাণ বা প্রযোজনার ইচ্ছা আছে?

সুচরিতা: আসলে আমার কাছে ছবি করার মতো টাকা নেই। তবে ভালো ছবি নির্মাণ হলে বিনা পয়সায় কাজ করতে রাজি আছি। আমি মনে করি, শিল্পী সমিতিও এ বিষয়ে কাজ করতে পারে। বনভোজনের আমন্ত্রণপত্রে এত স্পন্সর দেখলাম, তাহলে কেন আমরা ছবির জন্য স্পন্সর পাচ্ছি না। আমি জায়েদ খানকে খুব পছন্দ করি, সুন্দর ব্যবহার। সমিতির জন্য অনেক কিছু করছেন। মাঝে মাঝে আমাকে ফোনে বলে, আমি সমিতির জন এটা করেছি-ওটা করেছি। আমার মনে হয়, সমিতি সুন্দর করে সাজিয়ে কোনো লাভ নেই। সবকিছু থেকে বেঁচে দিয়ে সিনেমা তৈ/রি করো। ছোট বাজেটের ছবি হলেও সমস্যা নেই। সেই ছবি দর্শক না দেখলেও সমস্যা নেই। যাই হোক সিনেমা তো তৈরী করো। এতে লেখা থাকবে ছবিটি শিল্পী সমিতি প্রযোজনা করছে, সব শিল্পী প্রয়োজন হলে আমরা বিনামূল্যে কাজ করব। ছবি হিট হলে তা থেকে টাকা নেবেন শিল্পীরা। আসল ছবিটা না হলে বাকি সব মিথ্যে।

প্রশ্ন: বর্তমান সময়ের কোন নায়ককে আপনি পছন্দ করেন?

সুচরিতা: শাকিব খান আমাদের চলচ্চিত্রের রাজপুত্র। নিখুঁত অভিনয়, সুন্দর ব্যবহার। এরপর বাপ্পী চৌধুরী, আরিফিন শুভ, সাইমনও ভালো করছেন। তাদের শেখার এবং কাজ করার চেষ্টা করার ইচ্ছা আছে। তাদের চেহারা সুন্দর, ও/দের পছন্দ করবে। ছবির সংখ্যা বাড়লে দর্শক মূ/ল্যায়ন করতে তাদের।

প্রশ্ন: বর্তমান নায়িকাদের মধ্যে কাকে পছন্দ করেন?

সুচরিতা: অপু বিশ্বাস, একজন দুর্দান্ত অভিনয়শিল্পী এবং দারুণ মানুষ। তারপর পরী মণি, যার মধ্যে আমি অভিনয়ের ক্ষুধা লক্ষ্য করেছি। মাহি ও আঁচল। তারাও ভালো কাজ করে। কিন্তু আমার আ/সলে ছবি দে/খা হয় না । হয়তো আরো অনেকেই কাজ করছে।

প্রশ্ন: আপনার মতে বর্তমান সময়ের সেরা জুটি কোনটি?

সুচরিতা: শাকিব-অপু। আমি মনে করি এই দম্পতি ঈশ্বর দ্বারা তৈরি করে পাঠানো হয়েছে। আমি যখন তাদের পর্দায় গান গাইতে দেখি, আমার মনে হয় তারা সত্যিকারের জুটি, গান গাইছে। অভিনয় ক/রছে বলে মনে হয় না। তারা আমার প্রিয় জুটি। একসময় প্রিয় জুটি, এখন তারা প্রি/য় পরিবার। কি সুন্দর ছেলে দেখেন? ইশ, তারা এখন আলাদা কেন? তোমরা সবাই মি/লে শাকিব-অপুকে এক করে দা/ও না, প্লিজ। তোমরা সবাই মি/লে ধরলে আ/র না করতে পা/রবে না।

প্রসঙ্গত, চলচ্চিত্রে মাধ্যমে বিভিন্ন কারনে আগের মতো ছবি নির্মান হয় না মন্তব্য করেন আলোচিত্র অভিনেত্রী সুচিরিতা। তিনি বলেন, এটিকে আগের জায়গায় ফেরাতে ভালো সিনেমা নির্মানের বিকল্প নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *